নারী আকর্ষণীয়











প্রচলিত আছে, চটপটে বাকপটু নারীদের পুরুষরা বেশি পছন্দ করে। নরম স্বভাবের নারীদের পুরুষরা কম পছন্দ করে। তবে অবাক করা বিষয় হচ্ছে জীবন সঙ্গী হিসেবে বেশিরভাগ পুরুষ আসলে লাজুক মেয়েদেরই বেশি পছন্দ করে।


লাজুক নারীদের বলছি, আপনি যদি লজ্জাবতী হয়ে থাকেন তবে আপনার এই গুণটিই আশেপাশের পুরুষদের কাছে আপনাকে কাঙ্ক্ষিত করে তুলতে পারে। কারণ হিসেবে নিচের বিষয়গুলো একটু চোখ বুলিয়ে নিন:


নমনীয়তা


পুরুষ একজন নারীকে তার শান্ত এবং নমনীয় স্বভাবের জন্য বেশি পছন্দ করে। নারীর নমনীয় স্বভাব তাকে আকর্ষনীয় করে তোলে।


একজন নমনীয় স্বভাবের নারী উচ্চ স্বরে চিৎকার, গলাবাজি করেনা। ঘরে


র বাইরে নমনীয় স্বভাবের পরিচয় দেয় তখন তাকে অনেক বেশি কোমল করে তোলে। একজন নারীর শারীরিক অঙ্গভঙ্গি, কথা বলার ধরণ, চোখের নরম চাহনি পুরুষকে আকর্ষন করার হাতিয়ার হতে পারে।


বিশ্বস্ততা


একজন নারীর শান্ত স্বভাব তাকে পুরুষের কাছে বিশ্বস্ত করে তোলে। পুরুষ তখনই নারীর প্রতি আকর্ষন বোধ করে যখন সে তার কাছে সকল গোপন কথা শেয়ার করতে পারে। পছন্দের পুরুষকে কাছে টানতে আপনার স্বভাবসুলভ সরলতা ও লাজুকতার সাহায্য নিন।


সঙ্গীর গুরুত্ব প্রকাশ করুন


সকল পুরুষ যে কোন সম্পর্কে নিজের আধিপত্য বিস্তার ও তা প্রকাশ করতে বেশি ভালোবাসে। পুরুষরা লাজুক নারীদের বেশি পছন্দ করেন কারণ তারা বোঝেন যে, লাজুক মেয়েদের সহজে নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব। পুরুষরা চায় তার নারী সঙ্গীটি যেন তার কথা শোনে, তাকে গুরুত্বের সাথে নেয়, কোন ব্যাপারে অমত হলেও চিৎকার বা রাগারাগি না করে।


ধীরস্থির স্বভাব


আশ্চর্য হলেও সত্য নারীদের কাজ বা চলাফেরার ধীরগতি তাকে আকর্ষনীয় করে তুলতে পারে। একজন নারী যখন নিজেকে শারীরিক বা মানসিকভাবে প্রকাশ করতে সময় বেশি নেবে তখন তা তাকে বেশি আকাঙ্ক্ষিত করে তোলে। এতে সঙ্গীর প্রতি অনুভূতিও বৃদ্ধি পেতে থাকে।

0 comments:

Post a Comment

" কিছু স্বপ্ন আকাশের দূর নীলিমাক ছুয়ে যায়, কিছু স্বপ্ন অজানা দূরদিগন্তে হারায়, কিছু স্বপ্ন সাগরের উত্তাল ঢেউ-এ ভেসে যায়, আর কিছু স্বপ্ন বুকের ঘহিনে কেদে বেড়ায়, তবুও কি স্বপ্ন দেখা থেমে যায় ? " সবার স্বপ্নগুলো সত্যি হোক এই শুভো প্রার্থনা!

Follow me