ইতি কথার পরের কথা !


ইতি কথার পরের কথা ।

বিয়ে করার ঘটনাকে কেন্দ্র করে নীলা আমাকে সাফ সাফ জানিয়ে দিল সে আর আমার সাথে সম্পর্ক রাখবেনা । কথাটা শুনে আমার মাথায় আকাশ ভেঙ্গে পড়ল । সে রাতে আমি জেগে ছিলাম । নীলা সাথে একটু কথা বলার জন্য অথচ নীলা মোবাইলটা বন্ধ করে রেখেছে, কথা বলার সুযোগটুকুও দিলনা । 

মনে মনে ভাবলাম, মানুষ এতটা নিষ্ঠুর হয় কি করে ? দীর্ঘ পাঁচ বছরের ছোট্ট ছোট্ট অনুভুতি, ভালবাসা, ভাললাগা, অপেক্ষা, ঝগড়া এগুলোর কি কোন মুল্য নেই ?

আজ বুঝলাম, চরম নিষ্ঠুর আর হৃদয়হীন হওয়ার ক্ষমতা নিয়েই প্রতিটি নারী জন্মায়, নীলাও কার বাইরে নয় । ও আরো বেশী হৃদয়হীন অন্যদের চেয়ে । এক দিনেই পুরোটা বদলে গেছে । মনে হয় ওর অন্তরটা পাথরে ঘেরা । তবে আমার বিশ্বাস ও আমাকে এতদিন ভালবাসেনি, নিজের স্বার্থের আশায় ঘুড়িয়েছে । 

আজও আমি সারারাত জেগে রইলাম, পুরোনো কথা মনে পড়তে লাগল । প্রথম যখন নীলার সাথে আমার পরিচয়-কথা বলতে কেমন ভয় ভয় লাগত, আবার ভালও লাগত । কখনোই নীলার মোবাইলের টাকা খরচ করতে দিতামনা, কিন্তু মনে মনে চাইতাম নীলা আমাকে ফোন করুক । যেদিন ফোন করত না সেদিন কষ্টে চোখে পানি চলে আসত । আবার চোখে পানি চলে আসার জন্য নিজের উপর রাগও হত । কি অদ্ভুদ সময় গেছে ! ইস এই সময়টা আর ফিরে আসবেনা । যাক ভালবাসার মানুুষের সাথে বিয়ে না হওয়াই বোধ হয় ভাল । বিয়ে হলে মুনষটা থাকে, ভালবাসা থাকেনা । আর যদি বিয়ে না হয় তাহলে হয়ত বা ভালবাসা থাকে, শুধু মানুষটা থাকেনা । মানুষ এবং ভালবাসা এই দুয়ের মধ্যে ভালবাসাই হয়ত বেশী প্রিয় । 


কেন যে তুমি আমাকে ছেড়ে দিলে, কেন নীজের কাছে রাখলেনা । আমিতো ভালও হতে পারতাম । শুনেছি মেয়েরা মানুষ বদলানোর ওস্তাদ ? তুমি কেন আমাকে ফেরালেনা ? কেন ভালোর পথে টেনে আনলেনা ? কেন আমাকে শাসন করলেনা ? কেন তোমার কথামত চলতে বাধ্য করলেনা ?  কেন ?

বিশ্বাস করো, মাঝে মাঝে মনে হয় এই পৃথিবীতে আমার চেয়ে একলা আর  কেউ নেই । খুব কষ্ট হয় । নিজেকে বড় হতভাগ্য মনে হয় । আমার চেয়ে অভাগা এই পৃথিবীতে আর দিতীয়টা নেই । নীলা আমি খুব একা হয়ে পড়েছি, আর পারছিনা । 

আজ বহিরে ভীষন বৃষ্টি হচ্ছে । আজ তোমাকে দারুনভাবে মিস করছি । আজ তুমি থাকলে তোমাকে নিয়ে বৃষ্টিতে ভিজতাম । তোমার হাত ধরে ছাদে দিয়ে বসন্তের জোস্না বৃস্টি গায়ে মাখতাম । শুধু তোমার চোখের দিকে তাকিয়ে কাটিয়ে দিতাম আজকের সারাটা রাত । 

মাঝে মাঝে মনে হয় আমার মাথাটা একদম গেছে । তুমি একদিন এসে আমাকে পাগলা গারদে ভর্তি করিয়ে দিও । সুন্দর একটা কামরা থাকবে । ডাক্তার নার্সের চোহারা থাকবে সুন্দর সুন্দর । কেবিন দেখে মনে হবে ফাইভ স্টার হোটেলের  স্যুইট । কেবিনে থাকবে নিশ্বব্দ এসি । চোখের সামনে থাকবে এল ই ডি টিভি । বিছানার পাশে থাকবে ফুলের স্তুপ । ফুরের তোরা । তোরার পাশে গেটওয়েল কার্ড । অসুখের মত বাজে ব্যাপারগুলোকেও আনন্দময় করে দেবে । কিছুক্ষন পর পর তুমি এসে আমার কপালে চুমো দিয়ে বুকের উপরে হাত রাখবে । মাঝে মাঝে আমার হাতটি নিয়ে তোমার গালে রাখবে । কখনো কখনো তোমার মাথা আমার বুকের উপরে রেখে হৃদয়ের স্পন্দন শুনবে । কখনো কখনো আমার সুস্থ্য হওয়ার ব্যকুলতাকে কেন্দ্র করে কান্নায় ভেঙ্গে পরে আমাকে জরিয়ে ধরবে, আমি অনুভব করব তোমার মসলিন স্পর্শ । এভাবে কেটে যাবে আমার প্রতিটি মিস্টি সকাল, ক্লান্ত দুপুর আর পড়ন্ত বিকেল । 

সত্যিই বিশ্বাস করো, আজ তোমাকে ধারুনভাবে মনে পড়ছে । 

0 comments:

Post a Comment

" কিছু স্বপ্ন আকাশের দূর নীলিমাক ছুয়ে যায়, কিছু স্বপ্ন অজানা দূরদিগন্তে হারায়, কিছু স্বপ্ন সাগরের উত্তাল ঢেউ-এ ভেসে যায়, আর কিছু স্বপ্ন বুকের ঘহিনে কেদে বেড়ায়, তবুও কি স্বপ্ন দেখা থেমে যায় ? " সবার স্বপ্নগুলো সত্যি হোক এই শুভো প্রার্থনা!

Follow me