ভালবাসা

আমার মনে হয় ভালবাসা বলে কিছু নেই। এটা একটা জাল বা ফাদ। আমরা এই জালে বা ফাদে আটক করে মানুষকে বন্ধী করে রাখি । আমরা এক একজন এই জালকে একেকভাবে ব্যবহার করি। এই জালে আটকা পরে কত মানুষকে যে পথে বসতে হয়েছে তার হিসাব নেই ।এই ফাদে পরে কত মানুষ যে সারারাত না ঘুমিয়ে দক্ষিনের বেলকুনীতে কাটিয়ে দেয় । রাতের ঘুম কেড়ে নেয় । কত জাহাজ সমুদ্রে ডুবেছে, কত রাজমহল ছেড়েছে ধনীর দুলাল। কত সংসার ভেঙ্গেছে অকালে, কত গৃহবধু হয়েছে বিধবা । কত সন্তান হয়েছে বাবা হারা কিংবা মা হারা। কত নগরী ধ্বংশ হয়ে সেখানে তৈরি হয়েছে গভীর সমুদ্র, কত সমুদ্রের উপরে গড়ে উঠেছে প্রাসাদ। আবার  কেউ  কেউ সারামাসের বেতন লুটিয়ে দিয়েছে, বাকী পরে যায় বাড়ী ভাড়া, আর বাচ্চার দুধের দাম। এ ভালবাসার কি মুল্য আছে ?

সত্যিকারের ভালবাসা জীবনে একবারই আসে । জীবনের প্রথম যাকে মানুষ ভালবাসে তাকে আর কখনো ভুলতে পারেনা। হাজার চেষ্টা করেও তাকে আর ভোলা যায়না। তাহলে অনেকেই প্রথম যাকে ভালবাসে তাকে পায়না । পরবর্তীতে অন্য কাউকে সঙ্গী করে বাকিটা জীবন কাটিয়ে দেয় কি করে ? এখানে ভালবাসার কি মুল্য আছে ?

বিখ্যাত একটা উপন্যাসে পড়েছিলাম, কোন পুরুষই একটি মাত্র মেয়ের সাথে সারাজীবন কাটাতে পারেনা। তাই গ্রীক দার্শনিকেরা পতিতা পল্লীতে বসে দর্শন নিযে আলোচনা করত। যাও এই মুহুর্তে এই শহরের সব বিবাহিত পুরুষকে গিয়ে জিজ্ঞাসা করো, তারা তাদের বর্তমান বউকে ছেড়ে ষোল বছরের একটি অবিবাহিত মেয়েকে সঙ্গী হিসাবে চায় কিনা। নিরানব্বই ভাগ বলবে হ্যা । হয়ত কেউ টাকার অভাবে, কেউ লোক লজ্জার ভয়ে মুখ খুলছেনা । একথায় আমরা কি বুঝি ভালবাসা বলে কিছু আছে ? আমার বিশ্বাস ভালবাসা বলে কিছু নেই । টাকা দিয়ে পৃথিবীর সব সম্পর্ক কিনে নেওয়া যায়।   

ধনবান পুরুষ:

বেশী ভাগ পুরুষের কাছে টাকা ও মর্যাদা এই দুটো বিষয়ই বড় । এদের কাছে ভালবাসার কোন দাম নেই। ওরা শুধু নারীদের ভালবাসার জালে ফেলে নিজের করে পেতে চায়। শুধু কেমনভাবে সেটা বলার অপেক্ষা । বেশীভাগ পুরুষই এক, একইভাবে মিথ্যা বলে। কেউ ভালবাসার অভিনয় করে, তারপর ধর্ষন করে । কেউ রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে তারপর ধর্ষন করে। কেউ বিয়ের নাটক করে তারপর ধর্ষন করে। আবার  কেউ  কেউ ধর্ষিতা হতে বাধ্য করে । আবার কখনো কখনো বাপের নেয়া ঋন পরিশোধ করতে না পেরে স্বেচ্ছায় মা-মেয়েকে একজনের হাতে ধর্ষিত হতে হয়। রাস্তা একই । সবাই ঐ তিনকাঠা জমির দিকেই লোভ।

বিরহী পুরুষ:

সত্যিকারের ভালবাসলে তাকে কখনো নিজের করে পেতে চেষ্টা করোনা । তাহলে সে তোমার ভালবাসা বুঝতে পারবেনা। আর তোমার ভালবাসাও আর বেচে থাকবেনা। তখন ভালবাসা মরে গিয়ে সেখানে জন্ম নেবে অধিকার আর দায়িত্ববোদের একটা শক্ত গাছ। সে গাছ ধীরে ধীরে ডালপালা বিস্তার করে তোমার মাথার উপর ভর বেচে থাকবে। চাইলেও তুমি আর স্বাধীনভাবে কিছুই করতে পারবেনা। হয়ত একদিন সেই গাছের চাপে নিজের প্রানটাই চলে যাবে। চলে যায়। (আসলে ভালবাসার ফাদে ফেলে ওরা কোন একজনকে নিজের করে পেতে চেয়েছিল। কিন্তু ওর ফাদটা শক্ত ছিলনা তাই সে ধরা দেয়নি।)

বিয়ের পাত্র :

প্রান চলে যাবার ভয়ে জীবনকে কারো সাথে জরাবোনা এটা কি হয়। এই অবিবাহিত ছন্নছাড়া জীবনের কি মুল্য আছে। দিন যায়, রাত যায়, কেউ খবর রাখেনা। যদি হাতে একগুচ্ছ চুড়ি নিয়ে, মাথার ঘোমটাটা একটু সরিয়ে দিয়ে, কুড়ি বয়সের ঢলঢল মুখটি তুলে কোন একটাও প্রশ্ন না করে –কিগো এত রাত পর্যন্ত কোথায় ছিলে ? তুমি কি জানোনা, আমি একা থাকতে পারিনা ? তুমি কি মনে করেছে  তোমার কেউ নেই। তবে জীবনের মুল্য কোথায় ? স্বার্থকথা কোথায় ?

এই বিশটা বছর বাহির থেকে দড়জা খুলতে খুলতে আজ আমি ক্লান্ত, আমি চাই  কেউ একজন ভেতর থেকে দড়জাটা খুলে দিক। মেসের রান্না খেতে খেতে আজ আমার গ্যাসটিক হয়ে গেছে, আমি চাই কেউ একজন রান্না করা খাবার নিয়ে আমার জন্য খাবার টেবিলে অপেক্ষা করুক । এই শীতের রাতে একাকী লেজকাটা মাছের মত বিছানায় পড়ে থাকতে থাকতে আমি ক্লান্ত, আমি চাই নরম একটা শরীর, প্রতিদিন বিছানায় আমার জন্য অপেক্ষা করুক ।  

ডাক বালিকা :

যতদিন যৌবন থাকবে আমার শরীরে, তাকে বিনিয়োগ কর, ফুর্তি করো কিংবা মুঠো মুঠো টাকা আয় করতে হবে। এই পৃথিবীতে টাকাই হলো আসল । ভালবাসা বলে কিছু নেই । দশ হাজার টাকা হারিয়ে গেলে, কুড়ি বছর পরেও মানুষ সেই টাকার শোকে কাতর হয়। কিন্তু মানুষ হারিয়ে গেলে কুড়ি দিন পরই আমরা মোটামুটিভাবে তাকে ভোলার চেষ্টা করি। তাই টাকার কাছে ভালবাসা, স্নেহ, মমতা এগুল মুল্যহীন।

সদ্য বিবাহিত তরুন :

ভালবাসা ছাড়া জীবন মুরভুমি । ভালবাসা জীবনকে আলোকিত করে। ফেলে আসা জীবনের বেদনার বরফগুলোকে গলিয়ে ঝরনা করে দেয়, আর সেই ঝরনার শব্দ বুকে নিয়ে হাজার বছর বেঁচে থাকা যায়। যারা কখনো ভালবাসা পায়নি কিংবা যার জীবনে এমন কউ আসেনি । একথা সে কিছুতেই বুঝবেনা। বোঝা সম্ভব নয়।

স্বীকারোক্তি :

ভালবাসা বলে কিছু নেই। তবে এটাকে একটা স্বাপ্ন বলা যায়। আমরা যেমন রাতে ঘুমের ঘোরে স্বপ্ন দেখি, রাতের স্বপ্নগুলো ক্ষনিকের। ভালবাসা হলো একটু বেশী সময়ের ছয় মাস কিংবা এক বছরের কিংবা আরো বেশী। রাতের স্বপ্নগুলো যেমন কোন পরিনতি বা বাস্তবতা নেই। এটাও ঠিক তেমনি। তাইত এক লেখক বলেছেন, ভালবাসা হলো নিম্নচাপের মত,  আসবে কদিন থাকবে, তোমাকে ভেজাবে, তারপর আবহাওয়া বার্তা শুনে অন্যদিকে চলে যাবে । এটাকে চীরস্থায়ী ভাবার কোন কারন নেই।

হ্যা আমি এটা বিশ্বাস করি, কিছু কিছু মানুষের একটা ক্ষমতা থাকে। অন্যের ব্রেনকে পুরোপুরি অকেজো করে দেবার ক্ষমতা । যা কোন সহজ ক্ষমতা নয়। সবাই তা পারেনা। যেমন ধর, কারো জন্য পাগল হতে পারে অনেকেই, জীবনও দিতে পারে কেউ কেউ । কিন্তু নিজের জন্য অন্যের মনে পাগলামী সৃষ্টি করা বা কাউকে পাগল করতে সবাই পারেনা্ । নিজের মন যেমন খুশি তৈরি করা যায়, বোঝানো যায়, চালানো যায় কিন্তু খুব কম লোকই আছে যারা অন্যের মনকে চালাতে পারে। নিজের মত সাজাতে পারে। নিজের জন্য পাগল বানাতে পারে। হয়ত এটাকে ভালবাসা বলা যায়না, এটা কাউকে নিজের করে পাওয়ার একটা কৌশল !

মন্তব্য :

ভালবাসা হলো একটি সম্পর্ক। আমরা যেনো এই সর্ম্পটা কোন ফাদ হিসাবে ব্যবহার না করি। যাকে আমার চাই, যাকে পছন্দ করি, যাকে আমরা জীবনের সাথে জড়িয়ে নিয়েছি, কিছুটা স্যাকরিফাইজ করে হলেও সে সম্পর্কটা যেনো চীরদিনের মত টিকিয়ে রাখার চেষ্টা করি । কোন কারনেই যেনো কোন সম্পর্ক মাঝ পথে মুখ থুবরে না পরে। কোন অবস্থাতেই যেন একটা সম্পর্ককে আমরা কোন অবস্থাতে ভাগ করে না ফেলি। কারন সম্পর্ক হলো শক্ত খোলসের মধ্যে থাকা একটা ফল। উপরের খোলসটা হলো শ্রদ্ধার, আস্থ্যা আর বিশ্বাসের। কোন কারনে একবার যদি সেই খোলসটা ভেঙ্গে যায়, কিংবা ফাটল ধরে, তবে ভেতরের সর্ম্পটা পচে যায় দ্রুত।


(সবার সর্ম্পকগুলো হেমন্তের প্রথম ঠান্ডার মত মিস্টি ও সজিব থাক কিংবা সকালের কুয়াশার মত তড়তাজা এই প্রত্যাশায় রইল বিনম্র প্রার্থনা।)

0 comments:

Post a Comment

" কিছু স্বপ্ন আকাশের দূর নীলিমাক ছুয়ে যায়, কিছু স্বপ্ন অজানা দূরদিগন্তে হারায়, কিছু স্বপ্ন সাগরের উত্তাল ঢেউ-এ ভেসে যায়, আর কিছু স্বপ্ন বুকের ঘহিনে কেদে বেড়ায়, তবুও কি স্বপ্ন দেখা থেমে যায় ? " সবার স্বপ্নগুলো সত্যি হোক এই শুভো প্রার্থনা!

Follow me