আপনার সঙ্গিনী যে ৭টি কথা কখনো মুখ ফুটে বলতে পারেন না

হ্যাঁ, মেয়েরা অনেক কথা বলেন। কিন্তু অদ্ভুত বিষয়টা হচ্ছেন নিজের একান্ত ইচ্ছা ও অনুভূতির কথা তাঁরা কিছুতেই মনের মানুষটিকে মুখ ফুটে বলতে পারেন না। তিনি হয়তো আদুরে অনেক আবদার করেন আপনার কাছে, কিন্তু তারপরেও এমন কিছু ব্যাপার আছে যেগুলো সহজাত নারীসত্ত্বার কারণেই উচ্চারণ করতে পারেন না। কিন্তু মনে মনে খুব চেয়ে থাকেন যে পুরুষটি সেগুলো বুঝে নিক। আর যখন একজন পুরুষ বুঝে নেন নিজের প্রিয় নারীর মনের গোপন এই কথা গুলো, সম্পর্ক হয়ে ওঠে ভীষণ মধুর।

১) যৌন আকাঙ্ক্ষার ও ফ্যান্টাসির কথা

আমাদের দেশের খুব কম মেয়েই নিজের যৌন আকাঙ্ক্ষার কথা প্রিয় পুরুষকে বলতে পারেন। প্রথমত লজ্জা, দ্বিতীয়ত অনেক পুরুষই স্ত্রীর যৌন আকাঙ্ক্ষার বিষয়টিকে ভীষণ নেগেটিভভাবে নিয়ে থাকেন। একটা বিষয় মনে রাখবেন, যৌন আকাঙ্ক্ষা থাকা মোটেও খারাপ কোন বিষয় নয়।
এবং বিষয়টি একজন পুরুষের যতটা আছে, ততটা আছে এখন নারীরও। স্বামী ও স্ত্রী যখন পরস্পরের মনের গোপন ইচ্ছা, ফ্যান্টাসিগুলো জানবেন-বুঝবেন, তখনই সম্পর্কটা হবে সবচাইতে মধুর।

২) পৃথিবীতে সবচাইতে বেশী তিনি আপনার ভালোবাসা চান

ভাবছেন দামী উপহার দিলেই সঙ্গিনী খুশি? মনে রাখবেন, নারী যদি আপনাকে ভালোবেসে থাকেন, তাহলে কেবল আপনার গভীর ভালোবাসাই তার একমাত্র চাহিদা। এমন ভালোবাসা, যাতে এক বিন্দু খাদ নেই। দামী উপহার দেবার সামর্থ্য নেই? নিজের ভালোবাসা প্রকাশ করুন আন্তরিকভাবে। দেখবেন যে এটাই হয়ে উঠবে তার সবচাইতে বড় উপহার। আর কারণেই অর্থ-বিত্ত না থাকা সত্ত্বেও বহু দম্পতিই ভীষণ সুখে সংসার করে থাকেন।

৩) তিনি ভীষণ চান আপনার প্রশংসা

একটা কথা মনে রাখবেন, সঙ্গিনীর সবচাইতে বড় আনন্দ আপনার প্রশংসা পাওয়ায়। তিনি আপনার জন্য যা করছেন, যা করেন সেটার প্রশংসা অবশ্যই করুন। প্রশংসা করুন তার ব্যক্তিত্ব ও সৌন্দর্যের। তার কোন ব্যাপারগুলো আপনার ভালো লাগে, তাঁকে জানান সুযোগ পেলেই। সম্পর্ক থাকবে মধুর মত মিষ্টি।

৪) আপনাকে হারাতে ভয় পান বলেই তিনি ঈর্ষা কাতর হন

মাঝে মাঝে সঙ্গিনী খুব "পজেসিভ" আচরণ করেন? আপনি অন্য কারো দিকে তাকালে বা এমনকি নায়িকাদের দিকে দেখলেও সহ্য করতে পারেন না? এটা রাগ না করে খুশি হোন পুরুষ। কারণ এটাই প্রমাণ যে তিনি আপনাকে ভালোবাসেন। প্রতারণা তো দূরের ব্যাপার, কখন সঙ্গিনীকে কারো সাথে তুলনা করবেন না। এমনকি নায়িকা, নিজের মা-বোনের সাথেও না। বন্ধুর বন্ধু, প্রাক্তন স্ত্রী বা প্রেমিকা এমন মানুষের সাথে তো কখনোই না। সম্পর্ক মুহূর্তে তেতো হয়ে যাবে।

৫) ঝগড়া কিংবা অভিযোগ হচ্ছে তার অভিমানের বহিঃপ্রকাশ

মেয়েরা যখন অকারণে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে ঝগড়া করে, অভিযোগ করে, রাগ দেখায়... তার অর্থ এই যে পছন্দের মানুষটার মনযোগ চাইছে সে। সে চাইছে মানুষটা একটু ভালবাসা দেখাক, একটু আহ্লাদ করুক, সময় কাটাক, ভালোবাসুক। মানুষটাকে মিস করছে সে, তার সঙ্গ কামনা করছে, একটু আদুরে হতে চাইছে। স্বাভাবিক ভাবে পাওয়া যাচ্ছে না, তাই রাগ দেখিয়ে মনযোগ চাইছে।

৬) তিনি আপনার সাথে রূপকথার মত সুখী ও আনন্দের একটা জীবন চান

স্বীকার করুক বা নাই করুক, মেয়েরা মনে মনে নিজেত্র স্বপ্নের রাজপুত্রের জন্যই অপেক্ষা করে। তিনি আপনাকে ভালোবাসে, এর অর্থ হচ্ছে তার চোখে আপনিই সেই স্বপ্নের রাজপুত্র। আর মেয়েদের জন্য সেই স্বপ্নের মানুষটির যে কত মূল্য, সেটা ভাষায় প্রকাশ করা সম্ভব না। মুখে তিনি যাই বলুন না কেন, আসলে তিনি চান আপনি তাঁকে আগলে রাখুন খুব। আপনার বাহুডোরেই শান্তিতে জীবন কাটিয়ে দিতে চান তিনি।

৭) তিনি চান আপনার চাইতে বেশী ভালো কেউ যেন তাঁকে না বাসে

কথাটা অদ্ভুত শোনাল? আসলে কিন্তু এটা সত্য। মেয়েটি চান আপনার ভালোবাসা যেন এত প্রবল আর প্রচণ্ড হয়, যেন এরচাইতে বেশী ভালোবাসা সম্ভব না হয়। জীবনে হয়তো পরিবার থেকে শুরু করে অনেক গুণগ্রাহীও ভালোবাসেন তাঁকে। কিন্তু তিনি চান আপনার ভালবাসাটা হবে সবার চাইতে বেশী।

0 comments:

Post a Comment

" কিছু স্বপ্ন আকাশের দূর নীলিমাক ছুয়ে যায়, কিছু স্বপ্ন অজানা দূরদিগন্তে হারায়, কিছু স্বপ্ন সাগরের উত্তাল ঢেউ-এ ভেসে যায়, আর কিছু স্বপ্ন বুকের ঘহিনে কেদে বেড়ায়, তবুও কি স্বপ্ন দেখা থেমে যায় ? " সবার স্বপ্নগুলো সত্যি হোক এই শুভো প্রার্থনা!

Follow me