স্ত্রীরা বিশেষ সময়ে স্বামীর কাছে যা চান

স্ত্রী'রা বিশেষ সময়ে, স্বামীর কাছে যা চান !

আপনি যাকে ভালোবাসেন- যে আপনার সুখ-দুঃখের ভাগীদার- তাঁর একান্ত সময়ে পাশে থাকাটা আপনার কর্তব্য। একটা ঝড়ের মুহূর্তে নাবিক যেমন সমুদ্রের ঢেউ আর ঝড় থেকে রক্ষার কৌশল অবলম্বন করে জাহাজকে ধীরে ধীরে উপকূলের দিকে নিয়ে আসে, তেমনি আপনার স্ত্রীর এই সময়টা ঝড়ের সময়।

তার পাশে থেকে তাকে নিয়ন্ত্রণ করা আপনার দায়িত্ব। যখন দেখবেন আপনার স্ত্রী ফ্রিজে গাদা করে চকলেট রাখছেন কিংবা রোমান্টিক টিভি সিরিয়ালের প্রতি ঝুঁকে পড়ছেন, তখন আপনাকে বুঝতে হবে তাঁর মাসিক ঋতুচক্র হতে যাচ্ছে। মনে রাখতে হবে তার এই চকলেট সংরক্ষণ কিংবা টিভি সিরিয়ালের প্রতি ঝোঁক এটা মোটেও আনন্দদায়ক ব্যাপার নয়। আপনার স্ত্রী সামনের কঠিন পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার জন্যই এই চেষ্টা করছেন।

কেউ কেউ এই সময়টাতে নিজেকে একেবারে আড়ালে নিয়ে যান। মনোরোগ বিশেষজ্ঞ ডা.অংশু কুলকার্নি বলেন, এ সময়ে নারীরা ঈর্ষান্বিত হয়ে ওঠেন, বিষণ্ন  হয়ে থাকেন কিংবা আকস্মিক খুশিতে উদ্ভাসিত হয়ে ওঠেন।

এড়িয়ে চলা নয় নিবিড় হোন:

যদি তিনি আবদার করেন বিছানায় অন্তরঙ্গ হয়ে রোমান্টিক মুভি দেখুন। তাকে নিয়ে ভালো কোনো রেস্টুরেন্টে ডিনারে যেতে পারেন। যদি তাঁর প্রিয় কোনো রেস্টুরেন্ট থাকে তাহলে তো কথাই নেই। আপনার কোনো ইচ্ছা আবার তাঁর ওপর চাপিয়ে দিতে যাবেন না। এতে হিতে বিপরীত হতে পারে।

প্রয়োজনে হতে হবে গিনিপিগ:

ক্লিনিক্যাল হিপনোথেরাপিস্ট এবং মানসিক রোগ বিশেষজ্ঞ ডা. দীপালী এস আজিঙ্ক বলেন, মনে রাখতে হবে, এটা একটা মানসিক এবং হরমোন পরিবর্তনের সময়। এ সময়ে তিনি স্বাভাবিক অবস্থান থেকে কিছুটা সরে আসতে পারেন। এই সময়গুলোতে তাকে ভালো এবং নতুন প্লেটে খাবার দিন। তিনি আপনার যে শার্টটি পছন্দ করেন সেটাই পরুন। এমনকি তিনি যদি ড্রয়িং রুম থেকে অকারণেই আসবাবপত্র সরাতে চান তবে সমর্থন দিন।

কি এড়িয়ে চলবেন?

মাসিক ঋতুচক্রের সময় নারীরা খাদে পড়ে যাওয়া সিংহের মতো উন্মাদ আচরণ করতে পারে। এই দুঃসময়ে স্ত্রীকে জিজ্ঞেস করবেন না মাসের সেই সময়টা এসেছে কি না। প্রশ্ন করার অর্থ আপনি এই প্রশ্নের মাধ্যমে তার সাথে একটা দূরত্ব তৈরি করলেন।

উপহার দিন চকলেট:

আপনি যদি কখনো এ ধরনের পরিস্থিতির সময়ে নিজেকে আবিষ্কার করেন, তাহলে দেখবেন-  আপনার সামনের নারীটির হাতে এক টুকরো চকলেট আছে। গবেষণায় দেখা গেছে, মাসিক ঋতুচক্র চলাকালে চকলেট খাওয়া অনেক উপকারী। চকলেটের ট্রাইজেমিনাল গ্যাংলিওন ঋতুচক্রের সময় মাথাব্যাথা ছাড়াও বিভিন্ন সমস্যা থেকে মুক্তি দেয়।

হতে হবে সহানুভূতিশীল:

মাসের এই সময়টা স্ত্রী স্বামীর কাছ থেকে একটু ভালোবাসা পাওয়ার জন্য ব্যাকুল হয়ে ওঠেন। এ ব্যাপারে আপনার সতর্ক থাকা দরকার। কারণ তার মুড পরিবর্তনের জন্য আপনাকে সহানুভূতিশীল হতে হবে।

ঘরের কাজও করতে হবে:

এই সময়টাতে আপনাকে প্রয়োজনে কিছু ঘরের কাজও করতে হবে। এমনকি স্ত্রী যদি বলেন- আমার স্যানিটারি ন্যাপকিনটা ড্রয়ার থেকে দাও তো- সেটাও আপনাকে করতে হবে। শরীর খারাপ থাকলে রান্নার কাজও আপনাকে করতে হবে। এটা আপনার কর্তব্য।

ভুল ধরবেন না:

স্ত্রীর ভুল ধরাটা একটা স্বাভাবিক ব্যাপার। কিন্তু এই সময়টা ভুলত্রুটির উর্ধ্বে। কেননা, এ সময়ে ডায়েট ভুলে গিয়ে খাবার তালিকা এলোমেলো হতে পারে। এটা আপনার চোখে বড় দোষ হলেও এড়িয়ে চলুন। কেননা এটা অস্থায়ী একটা ব্যাপার। আপনি যদি তাকে চোখে চোখে রাখতে চান এবং ভুল ধরেন তাহলে এটা তাঁর মানসিক অবস্থার জন্য ক্ষতিকর হবে।

তর্ক করবেন না:

তর্ক এবং মারামারি এ দুটো ব্যাপার মাসিক ঋতুচক্র চলাকালে কঠিন ভাবে এড়িয়ে চলতে বলা হয়েছে। কারণ, এটা নিমিষেই আপনার প্রিয় মানুষটিকে গভীর হতাশায় ফেলে দিতে পারে। সব সময়ই তাকে স্বাভাবিক রাখার চেষ্টা করুন। স্ত্রীর প্রতি ভালোবাসা যদি অক্ষুণ্ন থাকে, তাহলে আপনার কর্তব্য পালনে দ্বিধা হবে না। ভালোবাসা আর  কর্তব্যবোধ বজায় রাখুন- তাহলেই সুখী হবেন।

0 comments:

Post a Comment

" কিছু স্বপ্ন আকাশের দূর নীলিমাক ছুয়ে যায়, কিছু স্বপ্ন অজানা দূরদিগন্তে হারায়, কিছু স্বপ্ন সাগরের উত্তাল ঢেউ-এ ভেসে যায়, আর কিছু স্বপ্ন বুকের ঘহিনে কেদে বেড়ায়, তবুও কি স্বপ্ন দেখা থেমে যায় ? " সবার স্বপ্নগুলো সত্যি হোক এই শুভো প্রার্থনা!

Follow me