নারীদের প্রয়োজন যে জিনিস!


ঢাকা: মেয়েরা অনেক ভুল ধারণায় ভোগে। প্রেমের সম্পর্ক তো বটেই, বন্ধুত্বও একসময় হয়ে ওঠে তিক্ত, অনেক সময় ভেঙ্গেও যায়। তাই অনাকাঙ্খিত ‘ব্রেক আপ’ এড়াতে নারীদের বেশ কয়েকটি জিনিস জানা থাকা প্রয়োজন।ফোনে কল করার অর্থ এই নয়- আপনি প্রেমের প্রস্তাব পেতে যাচ্ছেন

হঠাৎ করেই আপনার কাছে এলো একটি অপরিচিত কল। কিংবা পরিচিতও হতে পারে। তবে, অপ্রত্যাশিত আপনার কাছে। ভাবতে পারেন হয়তো ছেলেটি তার মেয়েবন্ধুর শূন্য পদে আপনাকে রাখতে চায়। আপনার এ ধারণা ভুলও হতে পারে। হতে পারে সে আপনার সঙ্গে শুধু কথা বলতেই আগ্রহী। সুতরাং এ রকম ক্ষেত্রে বিষয়টি ভালো করে ভাবুন।

মেকআপ ছাড়াই আপনি সুন্দর

আপনার সাজ-সজ্জা সবই ঠিক আছে। কিন্তু আপনার পুরু মেকআপ হয়তো বন্ধুর ভালো নাও লাগতে পারে। সুতরাং নিজেকে সাধারণ ও স্বাভাবিক মেকাপে রাখুন। এ আপনার অকৃত্রিমতা ফুটে উঠবে।

শিশুসুলভ আচরণ ছাড়ুন

হয়তো আপনার ছেলেবন্ধুর সঙ্গে কোথাও গেলেন। সেখানে দেখা হলো আপনার অন্য মেয়েবন্ধুদের সঙ্গে। আর এতে আপনি মুখ চেপে রহস্যজনক হাসি হাসলেন কিংবা লাফাতে শুরু করলেন। এ ধরনের আচরণকে আপনার সঙ্গী শিশুসুলভ বলে ভাবতে পারে, যা তার পছন্দ নাও হতে পারে।

ক্লাস রুমের আচরণ বাইরে করবেন না

আপনার ছেলেবন্ধুটি হয়তো আপনার সাহচর্য চায়। আপনারা একসঙ্গেই রয়েছেন। অথচ এই সময়ে আপনি বন্ধুর কাছ থেকে নোট নিচ্ছেন কিংবা ফিসফিসানি করছেন। আপনার অন্য বন্ধুরা তখন টেবিলে অন্যদের সঙ্গে গল্প করছে। এরকম পরিস্থিতিতে আপনার ছেলেবন্ধুটি ভাবতে পারে আপনি এখনও ক্লাসরুমেই আছেন। সুতরাং এ ধরনের পরিস্থিতি সৃষ্টি করবেন না। অবশ্য আপনি না চাইলে ভিন্ন কথা।

প্রশংসাযোগ্য হলে ছেলেবন্ধুকে প্রশংসা করুন

বন্ধুত্বের সম্পর্ক আছে এমন কোন ছেলে-মেয়ে একসঙ্গে থাকলে নিজের ব্যাপারে একটু বেশিই ইতস্তত করে ছেলেটি। মনে করে, মেয়েরা তাদের চুল, ত্বক, ওজন আর কাপড়ের ব্যাপারে মনোযোগী বেশি। তার এই ইতস্তত ভাব দূর করতে আপনি তাকে বলতে পারেন তার চুলের কাটিং কেমন হয়েছে কিংবা কেমন লাগছে তাকে নতুন টি-শার্টে। তবে এর মধ্যেও আপনার পছন্দ অনুযায়ী পরামর্শ দিতে ভুলবেন না।

গুরুতর বিষয়ে আন্তরিক থাকুন

হ্যাঁ, ছেলেরা ভালো করেই জানে, আপনার মধ্যে একটু পাগলাটে ভাব আছে। কিন্তু ভাববেন না, এতে আপনি গুরুতর অপরাধ থেকে পার পেয়ে যাবেন। তাই, আপনি যেমনই হোন না কেন, গুরুতর বিষয়ে আন্তরিক থাকুন।

কেবল নিজের কথা অন্যকে শোনাবেন না

এটা সবারই জানা যে কোনো ছেলেবন্ধুই- যে অন্তত ছিটকে পড়তে চায় না- কখনও বলতে চায় না যে তার মেয়েবন্ধুটি মোটা হয়ে যাচ্ছে। তাই আপনার ছেলেবন্ধুর সঙ্গে আলাপে শরীরের ওজনের প্রসঙ্গটি এড়িয়ে চলুন। কেননা এতে বিব্রত হতে পারে সে।

এড়িয়ে চলুন আঁটসাঁট পোশাক

আপনার পছন্দ হতে পারে, কিন্তু আপনার আঁটসাঁট পোশাক আপনার ছেলেবন্ধুর পছন্দ নাও হতে পারে। কারণ অধিকাংশের কাছেই এটি মার্জিত নয়। তা ছাড়া এমন পোশাকে বেপরোয়া আর নিরাপত্তাহীন মনে হবে আপনাকে। তাই এটা করতে গিয়ে আপনাকে সত্যিই বেপরোয়া মনে হচ্ছে কি-না, তা ভেবে দেখার প্রয়োজন রয়েছে।

অধিকাংশ ছেলেই উপযুক্ত মেয়েটিকেই চায়

মেয়েরাই যে কেবল উপযুক্ত ছেলেটিকে বেছে নিতে চায়, তা নয়, ছেলেরাও চায় তার মেয়ে সঙ্গীটি উপযুক্ত হোক। সুতরাং ভালোবাসার খেলায় সব ধরনের কাঁচুমাচু ভাব ত্যাগ করুন, সিরিয়াস হোন।

যদি পছন্দ করেন, বলে ফেলুন

অনেকে ভালো লাগা- না লাগার বিষয়ে রহস্যময়তা পছন্দ করেন। এটা ঠিক নয়। যদি আপনার কাউকে ভালো লাগে তবে এমন ভান করবেন না যে আপনি তাকে অবহেলা করেন। যদি সে আপনার ব্যাপারে আগ্রহ দেখায় এবং আপনারও অবস্থা থাকে একই রকম- তবে প্রকাশ করুন তা। যাচাই করার অধিকার আপনার নিশ্চয়ই আছে। তবে কাউকে কোনো কারণ ছাড়াই দীর্ঘ সময় অপেক্ষমান রাখবেন না।

0 comments:

Post a Comment

" কিছু স্বপ্ন আকাশের দূর নীলিমাক ছুয়ে যায়, কিছু স্বপ্ন অজানা দূরদিগন্তে হারায়, কিছু স্বপ্ন সাগরের উত্তাল ঢেউ-এ ভেসে যায়, আর কিছু স্বপ্ন বুকের ঘহিনে কেদে বেড়ায়, তবুও কি স্বপ্ন দেখা থেমে যায় ? " সবার স্বপ্নগুলো সত্যি হোক এই শুভো প্রার্থনা!

Follow me