ভালো বস, নাকি ভালো লিডার?

কর্মজীবনে বস, লিডার এই শব্দ গুলোর সাথে কমবেশি আমরা সকলেই পরিচিত। কেউ হয়তো চাকরি করছি এক বা একাধিক “বস” এর অধীনে। আবার কেউ বা নিজেই বস, হয়তো আপনার অধীনেই আজ করছেন একাধিক “কর্মজীবী” মানুষ। আপনি নিজে যখন কারো বস, তখন কিন্তু একটা প্রশ্ন উঠবেই- “আপনি ভালো বস তো?”... আবার যখন ভালো বস হয়ে উঠবেন, তখন উপস্থিত হবে আরেকটি প্রশ্ন-“ আপনি একজন ভালো লিডার বা নেতা হয়ে উঠেছেন তো?”

ভাবছেন, বস আর লিডারের মাঝে আবার পার্থক্য কি! যে বস, সেই তো লিডার।... তাই না? ভাবনাটা কিন্তু একদম ভুল! একজন ভালো বস সর্বদা একজন ভালো লিডার নাও হতে পারেন। তবে সাধারণত ভালো লিডারেরা একজন ভালো বস-ও হয়ে থাকেন। আসুন, আজ আলোচনা করা যাক ভালো বস ও লিডারের মধ্যেকার মিল-অমিল এবং আরও নানান বিষয় নিয়ে।

 

প্রশ্ন যখন সম্মানের-

একজন ভালো বসকে এমপ্লয়ীরা সম্মান অবশ্যই করে, তবে তার সাথে জড়িত থাকে খানিকটা বাধ্যবাধকতাও। কেননা আপনি তার বস, তার চাইতে উচ্চ পদে আসীন। কিন্তু বসই যখন হয়ে ওঠেন ভালো লিডার, তখন এমপ্লয়ীরা সম্মান করেন তার নেতৃত্ব ও কর্মদক্ষতাকেই।

 

আপনি অনুকরণীয় একজন কি?-

লক্ষ্য করে দেখুন তো, এমপ্লয়ীদের চোখে আপনি কি অনুকরণীয় একজন? তারা কি আপনার কথায় অনুপ্রাণিত হয়ে কাজ করে থাকেন, নাকি পালন করে আপনার হুকুম? একজন ভালো লিডার সর্বদা তার এমপ্লয়ীদের চোখে একজন আদর্শ ব্যক্তিত্ব হয়ে ওঠেন।

 

চাপিয়ে দিলে নিজের সিধান্ত-

একজন ভালো লিডার কখনোই নিজের সিধান্ত কারো ওপরে চাপানোর চেষ্টা করেন না। বরং সকলের সম্মিলিত মতামত গ্রহণ করে এমন একটি সিধান্তে আসেন যা কিনা হয় প্রতিষ্ঠানটির জন্য উন্নয়ন মূলক। অনেক বস আছেন, যারা কিনা সকল এমপ্লয়ীকেই মতামত ব্যক্ত করতে দেন, কিন্তু দিনশেষে নিজের সিধান্তই চাপিয়ে দেন। নিজের সিধান্তে অটল থাকতে চাইলে জিজ্ঞেস না করাই ভালো।

 

কাজের জন্য ভালোবাসা-

হয়তো বেশ বড় একটি প্রতিষ্ঠান, অনেক এমপ্লয়ী কাজ করছেন আপনার অধীনে। কখনো লক্ষ্য করে দেখেছেন কি, তাঁরা নিজের কাজটিকে উপভোগ করছে কিনা? একজন ভালো বস যখন ভালো লিডার হয়ে ওঠেন, তখন প্রত্যেক এমপ্লয়ী-ই নিজের কাজটি আগ্রহের সাথে করে এবং উপভোগ করেই করে। কেননা লিডার তাঁদের মাঝে সেই অনুপ্রেরণা জুগিয়ে থাকেন। কাজ যেমনই হোক, একজন ভালো লিডারের গুনে কাজটি হয়ে ওঠে প্রিয়। সুতরাং খতিয়ে দেখুন তো, এমপ্লয়ীরা ভালবেসে কাজ করছে? নাকি স্রেফ মাস শেষে কটা টাকার জন্য?

 

দলীয় একতা আছে কি? –

আপনার মনে হয়তো অনেক ক্ষোভ বা অভিযোগ এই কারণেই জমে আছে যে আপনার টিম বা এমপ্লয়ীদের মাঝে দলীয় একতা বোধটা নেই। কষ্টকর হলেও সত্যি যে, এই ব্যর্থতার দায় কিন্তু বেশিরভাগটাই আপনার। কিছু এমপ্লয়ী এমন থাকবেনই, যারা কারো সাথে মানিয়ে চলতে পারে না। কিন্তু বাকিদের ক্ষেত্রে মোটামুটি একটাই হিসাব প্রযোজ্য। একজন ভালো লিডার তার দলকে নিঃসন্দেহে এক সুতোয় বেঁধে ফেলতে পারেন। এবং সেই হাতিয়ারটা হয় সকলকে সম্মান দেয়া, সকলকে গুরুত্ব দেয়া। কেবল মাত্র লিডারের কারণেই একটি দল সঙ্ঘবদ্ধ থাকে, কেননা সকলেই একটি নেতৃত্বকে অনুসরণ করছে।

 

প্রতিস্থানের উন্নতি-

একটি প্রতিষ্ঠান অথবা কোনও প্রতিষ্ঠানের একটি বিভাগ কিভাবে উন্নতি করছে, সেটাই কিন্তু পরিচয় বহন করে টিম লিডার বা বসের। লক্ষ্য করে দেখুন তো, দলের সবার সম্মিলিত চেষ্টায় কি হচ্ছে উন্নতি? নাকি কেবল কয়েকজনের পরিশ্রমের কারণেই সম্ভব হচ্ছে? একজন ভালো লিডারের টিমে উন্নতি হবে সকলের প্রচেষ্টায়, কেবল হাতে গোনা কয়েকজনের জন্য নয়।

 

নিজ হতে দায়িত্ব বুঝে নেয়া-

একটি কাজ সকলের সামনে আনুন, জানতে চান যে কে এটা করতে চায়? যদি দেখেন সংখ্যা গরিষ্ঠ টিম মেম্বার হাত বাড়িয়েছেন দায়িত্ব বুঝে নিতে, বুঝবেন আপনি একজন সফল লিডার। আর যদি দেখেন কেউই আগ্রহী হচ্ছে না বরং অপেক্ষা করছে আপনি কখন কারো ওপর দিয়ে দিবেন, নিঃসন্দেহে জানবেন যে আপনি কেবলই একজন বস। এখনও ভালো লিডার হয়ে উঠতে পারেননি।
একটি প্রতিষ্ঠানের উন্নতি অনেকটাই নির্ভর করে তার টিম লিডার বা বসদের ওপরে। কেননা তাঁরাই পরিচালনা করেন এক দল এমপ্লয়ীকে, তাঁদেরকে একটি লক্ষ্যের দিকে একযোগে অগ্রসর করেন। ফলে তৈরি হয় একটি “উইনিং টিম”, আর একটি উইনিং টিমে কেবল একজন ভালো বস নয় বরং প্রয়োজন একজন ভালো লিডারের।

আপনি একজন ভালো বস হয়ে থাকলে এবার প্রশ্ন করুন নিজেকেই- আপনি একজন ভালো লিডার তো?

0 comments:

Post a Comment

" কিছু স্বপ্ন আকাশের দূর নীলিমাক ছুয়ে যায়, কিছু স্বপ্ন অজানা দূরদিগন্তে হারায়, কিছু স্বপ্ন সাগরের উত্তাল ঢেউ-এ ভেসে যায়, আর কিছু স্বপ্ন বুকের ঘহিনে কেদে বেড়ায়, তবুও কি স্বপ্ন দেখা থেমে যায় ? " সবার স্বপ্নগুলো সত্যি হোক এই শুভো প্রার্থনা!

Follow me