প্রতিভার জাদুতে




তারুণ্যের উচ্ছ্বাসের মাঝেই তার নিত্য বসবাস। শৈশব থেকেই মিডিয়ার প্রতি আগ্রহ ছিল। একটা সময় স্বপ্ন দেখতেন পারফর্মিং মিডিয়ায় কাজ করার। নিজের প্রতিভাকে মেলে ধরতেই মডেলিংয়ে নাম লেখান। মডেলিং আসার গল্প জানতে চাইলে শবনম ফারিয়া বলেন, 'আমার প্রথম কাজ বাসায় না জানিয়ে। ফেসবুকের মাধ্যমে এক মডেলের সাথে পরিচয়। তার অনুরোধে কাজ করা। ম্যাগাজিনে নিজের ছবি প্রকাশের পর বেশ কিছু কাজের অফার পাই। এভাবেই শুরু। মডেলিংয়ের কথা বাসায় জানে আরও অনেক পরে একটি পত্রিকায় ছবি ছাপা হওয়ার পর। প্রথম দিকে পরিবার থেকে অনেক বাধা ছিল। কিছু দিন পর কিছুটা শিথিল হলেও এখনও মিডিয়ায় কাজ করার ব্যাপারে কোনো সার্পোট পাই না। অনুপ্রেরণা বলতে যা বুঝায়, তা কখনও পরিবার থেকে পাইনি। বরং বাধাই পেয়েছি সব সময়। কিন্তু মডেলিংয়ের প্রতি আমার একটা অন্য রকম টান আছে। এই কাজের প্রতি ভালোবাসা ও আমার সততা আমাকে এতদূর এনেছে বলেই আমার বিশ্বাস। মিডিয়াতে কাজের যেই জিনিসটা আমি উপভোগ করি তা হলো—হঠাত্ কোনো একজন অপরিচিত লোক বলে তাদের প্রডাক্টের মডেলিং করার জন্য তারা আমাকে সিলেক্ট করেছে। এই ভালো লাগার অনুভূতি প্রকাশ করার মতো না। আর মিডিয়াতে কাজ করার সবচেয়ে মজার ব্যাপার হলো—কাজের স্বীকৃতি খুব তাড়াতাড়ি পাওয়া যায়। যেমন একজন লোক অনেক ভালো কাজ করে তার অফিসে কিন্তু সে কতটা সফল তা জানা যায় না। কিন্তু মিডিয়াতে সফলতা খুব সহজেই সবার নজর কাড়ে।' তার প্রথম বিজ্ঞাপনচিত্র প্রাণ চানাচুর প্রচারের পর সেখানে দারুণ পারফর্মেন্স সবার নজর কাড়েন। পরবর্তীতে আরও কয়েকটি বিজ্ঞাপনচিত্রে পারফর্ম করার অভিজ্ঞতা তার ঝুলিতে যুক্ত হয়। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো—প্যারাসুট নারিকেল তেল, প্রাণ জুস, রাঁধুনী গুঁড়া মসলা, লুসি অলিভ অয়েল ইত্যাদি। এ ছাড়া রঙ, অঞ্জনস, ইনফিনিটি মেগা মল, মান্ত্রা, বাংলার মেলা, মুমু মারিয়া, নগরদোলা, প্রবর্তনা, চরকা, এড্রয়েট ফ্যাশন হাউসের বিলবোর্ডসহ বিভিন্ন ফ্যাশন হাউসের মডেল হিসেবে কাজ করছেন এই তরুণ তুর্কি। বর্তমানে বিভিন্ন চ্যানেলে চ্যানেলে প্রচার হচ্ছে রাঁধুনী গুঁড়া মসলার নতুন একটি বিজ্ঞাপনচিত্র। এই বিজ্ঞাপনচিত্রে মডেল হিসেবে পারফর্ম করে শবনম ফারিয়া আবারও আলোচনায় এসেছেন। এই বিজ্ঞাপনচিত্রে কাজের অভিজ্ঞতা সম্পর্কে তিনি বলেন, 'এই বিজ্ঞাপনচিত্রের কাজের অভিজ্ঞতা অনেক ভালো। এই বিজ্ঞাপনচিত্রটি অনএয়ারের পর বন্ধু-বান্ধব ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের কাছ থেকে প্রচুর প্রশংসা পাচ্ছি।' সেইসাথে ইমরান ফিচারিং নির্ঝর-এর 'আরাধনা' গানের মিউজিক ভিডিওতে কাজ করেও তিনি অনেক প্রশংসা কুড়িয়েছেন। শবনম র্যাম্পে প্রথম পা রাখেন সুরের ধারা আয়োজিত 'রবীন্দ্রনাথের সৃষ্টি ও জীবন' শিরোনামের শো'তে। এ ছাড়া গুরুদেব রিটার্ন, দুই কবি এক মন, আল হাসান জুয়েলার্স-এর ওপেনিং শো, কিনু মেকআপ ওপেনিয়ং শো, জেন্টাল পার্ক উইন্টার স্ট্রিট শোতে পারফর্ম করেন। মডেলিং ছাড়াও ফারিয়া অভিনয়ের সাথেও যুক্ত হয়েছেন ইতোমধ্যেই। তবে বেছে বেছে কাজ করতে পছন্দ করেন বলে জানালেন। সম্প্রতি অভিনয় করলেন আসছে ভালোবাসা দিবসের বিশেষ টেলিফিল্ম এয়ারটেল নিবেদিত আদনান আল রাজিব পরিচালিত 'রানআউট'-এ। মডেলিং, অভিনয় ও উপস্থাপনার মধ্যে কোনটি আপনার পছন্দের? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, 'মডেলিং আমাকে চুম্বকের মতো টানে আর অভিনয় হলো ভালোবাসা। ভবিষ্যতে একজন ভালো অভিনেত্রী হতে চাই।' চলচ্চিত্রে অভিনয়ের ইচ্ছা প্রসঙ্গে শবনম বলেন, 'ইচ্ছে অবশ্যই আছে। বর্তমানে দেশীয় ফিল্মের পরিবেশ অনেক চেঞ্জ হয়ে গেছে। অনেক ভালো নির্মাতা আসছে চলচ্চিত্র নির্মাণে। তাই একটা হলেও চলচ্চিত্রে অভিনয় করতে চাই। তবে মানসম্পন্ন চলচ্চিত্রে অভিনয় করতে চাই।' 




0 comments:

Post a Comment

" কিছু স্বপ্ন আকাশের দূর নীলিমাক ছুয়ে যায়, কিছু স্বপ্ন অজানা দূরদিগন্তে হারায়, কিছু স্বপ্ন সাগরের উত্তাল ঢেউ-এ ভেসে যায়, আর কিছু স্বপ্ন বুকের ঘহিনে কেদে বেড়ায়, তবুও কি স্বপ্ন দেখা থেমে যায় ? " সবার স্বপ্নগুলো সত্যি হোক এই শুভো প্রার্থনা!

Follow me