কেমন রোদ চশমা কিনবেন


ফ্যাশনের কথা চিন্তা করে রোদ চশমা পরলেও এর উপকারিতা অস্বীকার করা যাবে না। সূর্যের ক্ষতিকর অতিবেগুনি রশ্মি থেকে রেহাই পেতে রোদ চশমা ব্যবহার হয়। বাজার থেকে যেকোনো একটা চশমা কিনে ফেললেই হলো না। জেনে নিতে হবে এর কার্যকারিতা বিষয়েও—


প্রথমেই জেনে নিন অতিবেগুনি রশ্মি (ইউভি) মোকাবেলায় এ রোদচশমা কতটা সহায়ক। যদি চশমার গায়ে লেখা থাকে অতিবেগুনি রশ্মি শোষণক্ষমতা ৯৯-১০০ ভাগ অথবা কোনো কোনো চশমায় লেখা থাকে ইউভি ৪০০, যার অর্থ ৪০০ তরঙ্গের আওতাধীন সূর্যরশ্মি প্রতিরোধ করে। এর আওতায় অতিবেগুনি রশ্মিও থাকে। কোনো চশমার লেবেলে যদি লেখা থাকে ‘ইউভি শোষণকারী’, তবে সেটা না কেনাই শ্রেয়।


যদি থাকে গায়ে লেখা ‘পোলারাইজড’, তার মানে এই নয় যে, তা অতিবেগুনি রশ্মি থেকে চোখকে রক্ষা করবে। পোলারাইজড রোদচশমা অত্যুজ্জ্বল আলো ম্রিয়মাণ করে। সাধারণত গাড়ি চালানোর জন্যই এ চশমা উপযোগী। যদি বৃষ্টির দিন হয় অথবা সমুদ্রে নামতে চান রোদচশমা চোখে দিয়ে, তবে পোলারাইজড লেখা দেখে কিনুন।


লেন্সের রঙও কিন্তু বিবেচনা করতে হবে। একেবারে ঘন কালো রঙের রোদচশমা মানেই চোখের সুরক্ষা নয়। বরং বিশেষ রঙ বিশেষ পরিবেশে উপযোগী। তুলনায় ধূসর, সবুজ, হলুদ, গোলাপি ইত্যাদি শেডের চশমা অধিক কাজে আসবে। ব্যক্তিগত পছন্দ রক্ষার পাশাপাশি এসব চশমা বিশেষ আলোয় বিশেষ সুবিধা দেবে। যেমন সবুজ রঙের চশমা সকালবেলা অথবা সাঁঝবেলায় বেশ কাজে দেয়। অধিক ফরসা দেখতে এ সময় সবুজ চশমা ব্যবহার করা যায়।


লেন্স কোনো উপাদান তৈরি তা খেয়াল করেন না অনেকেই। অথচ চোখের মতো গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গের সামনে এমন কিছু তো পরা যায় না, যা ক্ষতিকর। তাই চশমা কেনার সময় এসব বিবেচনায় রাখতে হয়। দামের কথা চিন্তা করে অনেকেই প্লাস্টিকের লেন্স কিনে থাকেন। বিশেষভাবে প্রস্তুত প্লাস্টিক দিয়ে এসব লেন্স তৈরি হয়। কেনার সময় তাই একটু খেয়াল রাখা দরকার। চোখে চশমাটা পরে ডানে-বামে বার কয়েক তাকানো দরকার। যদি লেন্সে কোনো খুঁত থাকে, তাহলে সহজেই ধরা পড়বে। আলোক রশ্মি ভিন্ন ভিন্নভাবে প্রবেশ করলেই বুঝবেন চশমায় কোনো সমস্যা থেকে গেছে।


বড় ফ্রেমের রোদচশমার চল এখন বেশি। একেবারে চোখের মাপের রোদচশমা অনেকেই পরে থাকেন যদিও। তবে বড় ফ্রেমই বেশি উপকারী। কারণ তা চারপাশ থেকে চোখকে রক্ষা করে। দুই পাশে বাঁকানো অথবা চশমার ডাঁটি যদি একটু চওড়া হয়, তাহলেও তা চোখের সুরক্ষায় কাজ করে। ফলে বড় ফ্রেমই ভালো ভূমিকা রাখে চোখ রক্ষায়।

0 comments:

Post a Comment

" কিছু স্বপ্ন আকাশের দূর নীলিমাক ছুয়ে যায়, কিছু স্বপ্ন অজানা দূরদিগন্তে হারায়, কিছু স্বপ্ন সাগরের উত্তাল ঢেউ-এ ভেসে যায়, আর কিছু স্বপ্ন বুকের ঘহিনে কেদে বেড়ায়, তবুও কি স্বপ্ন দেখা থেমে যায় ? " সবার স্বপ্নগুলো সত্যি হোক এই শুভো প্রার্থনা!

Follow me