ঘুম কেড়ে নিচ্ছে ইন্টারনেট


ইন্টারনেটের অতিরিক্ত ব্যবহারের কারণে স্বাভাবিক ঘুমের ব্যাঘাত ঘটছে। কারও কারও ক্ষেত্রে সমস্যাটি আরও বড় আকার ধারণ করে নিদ্রাহীনতায় পরিণত হচ্ছে। নতুন এক জরিপে দেখা গেছে, প্রতি ১০ জনে ১ জন অতিরিক্ত ইন্টারনেট ব্যবহারের কারণে রাতে পর্যাপ্ত ঘুমাতে পারেন না। গত বছরের ডিসেম্বরে অস্ট্রেলিয়াভিত্তিক নিটোল প্রতিষ্ঠান ২০০০ জনের ওপর একটি জরিপ চালায়।


জরিপে অংশ নেয়া ৫০ শতাংশেরও বেশি মানুষ বলেছেন, রাতে ঘুমাতে যাওয়ার সময় তারা ইন্টারনেট ব্যবহার করেন। প্রতি ৫ জনের মধ্যে ১ জন জানান, তাদের ফেসবুক, টুইটার বা ইমেইল অ্যাকাউন্ট দেখার প্রয়োজন হয়। কোন আপডেট যাতে তাদের নজর না এড়ায়, সে জন্য বেশির ভাগ ব্যবহারকারী ঘুমাতে যাওয়ার আগে একবার অনলাইনে ঢুঁ মেরে আসেন। কিন্তু, বিপত্তির শুরুটা সেখানেই। কারণ, এভাবে অনেকে ঘুম বাদ দিয়ে দীর্ঘক্ষণ ইন্টারনেট ব্যবহার করেন। প্রতি ১০ জনে মাত্র ১ জন বলেছেন, তাদের ভাল ঘুম হয়।


 এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা এএনআই। জরিপে দেখা গেছে, টেলিভিশন দেখার পর ১৫ মিনিটের মধ্যে প্রায় ৫০ শতাংশ মানুষ সোফা থেকে উঠে বিছানায় ঘুমাতে চলে যান। প্রতি ৫ জনের মধ্যে ২ জন ইমেইল বা সামাজিক নেটওয়ার্কিং ওয়েবসাইটে আপডেট জানতে লগ ইন করেন। সেটাও ঘুমানোর ঠিক আগে। আর জরিপে অংশ নেয়া প্রতি ৪ জনে ১ জন মনে করেন, তারা রাতে ঘুমানোর সময় বিছানায় শুয়েই ইন্টারনেট ব্যবহারে আসক্ত হয়ে পড়েছেন।

0 comments:

Post a Comment

" কিছু স্বপ্ন আকাশের দূর নীলিমাক ছুয়ে যায়, কিছু স্বপ্ন অজানা দূরদিগন্তে হারায়, কিছু স্বপ্ন সাগরের উত্তাল ঢেউ-এ ভেসে যায়, আর কিছু স্বপ্ন বুকের ঘহিনে কেদে বেড়ায়, তবুও কি স্বপ্ন দেখা থেমে যায় ? " সবার স্বপ্নগুলো সত্যি হোক এই শুভো প্রার্থনা!

Follow me