শেষ চুম্বন


ধরা যাক মেয়েটির নাম মেয়ে আর ছেলেটির নাম ছেলে।


সেই যে কোত্থেকে উড়ে এসে ছেলেটি হঠাৎ চুমু খেয়েছিল,


হঠাৎ মেয়েটিকে অবাক করে অবশ করে,


কোনও প্রেম ছাড়া, কাল দেখা হচ্ছে বা পরশু আসছি ছাড়া,


সেই যে গভীর করে চুমু খেয়েছিল, সেই যে চুরমার করে, টুকরো টুকরো করে,


সেই যে ভেঙে, ছিড়ে,


এক ঘর আলোয়,


সেই যে মেয়েটিকে আচমকা ডুবিয়ে ভাসিয়ে চুমু খেয়েছিল,


ছেলেটির তারপর থেকে দেখা নেই আর।


মেয়েটি জানে না ছেলেটি কে, কোথায় বাড়ি, শুধু চোখদুটো দেখেছিল,


চোখ দুটোয় দুটো মার্বেল ছিল, যেন ছোটবেলার খেলার মাঠে পড়ে থাকা দুটো ঝকঝকে মার্বেল,


এত হুড়মুড় করে কৈশোর আসেনি দীর্ঘদিন,


কারও চোখের চাওয়ায় উতল হাওয়াও এত ছিল না কোনওদিন ..


হঠাৎ চমকে উঠে মেয়েটি বলে, ছেলেটি কি সেই ছেলে?


নিজেকেই তারপর বারবার বলে, ছেলেটি তো সেই ছেলে যে ছেলে ঘুরন্ত লাটিম এনে হাতের তালুতে দিত প্রতিদিন! যতক্ষণ লাটিম ঘুরতো তালুতে, মনে হতো পুরো জগত তার হাতের মুঠোয়।


মেয়েটির শিরশির করতো শরীর, ছেলেটি মুগ্ধ চোখে দেখতো, খেলার মাঠে পড়ে থাকা


মার্বেলদুটো থেকে আলো ছিটকে এসে পড়তো সেই চোখে,


দুটো মার্বেল চোখ ছিল সেই মুগ্ধ চোখে।


ছেলেটি তবে কি সেই খেলার মাঠের ছেলে, এই চুমু খাওয়া ছেলে?


ছেলেটি তবে কি ঘুরন্ত লাটিম ছেলে? এই হঠাৎ আচমকা চুমু খাওয়া ছেলে?


কোনওদিন আবার আসবে কি না সে, আবার চুমু খাবে না কি না, মেয়েটি জানে না।


মেয়েটি জানেনা, সে রাতে আর কোথাও চুমু খাওয়ার কেউ ছিল না বলে


ছেলেটি চুমু খেয়েছিল, হাতের কাছে যাকে পেয়েছিল খেয়েছিল,


ঝড়বৃষ্টির রাতে, নির্জন রাতে, সাত পাঁচ না ভেবেই খেয়েছিল।


পরদিন নেশা কেটে গেলে ছেলেটি ভুলেও গেছে খেয়েছিল।


মেয়েটির স্বামী এসে সপ্তাহান্তের সঙ্গম সেরে যায়, স্বামী চুমু খেতে গেলে মুখ ঠোঁট সরিয়ে নেয় মেয়ে, এই শরীর দিচ্ছি নাও, সঙ্গমে সারাদিন মেতে থাকো, সারারাত থাকো, চুল থেকে পায়ের নখ অবধি চাখো চোষো, শুধু চুমুটা খেও না।


শেষ চুম্বনের স্মৃতি টুকু বাঁচিয়ে রাখে মেয়ে।


ওই চুমু তার হাতের মুঠোয় গোটা একটা জগত দেয়।


ওই চুমু তাকে এক ঝাঁক কৈশোর দেয়,


ছেলেটির চেয়ে বড় হয়ে উঠতে থাকে ছেলেটির চুম্বন,


চুম্বনের চেয়ে বড় হয়ে উঠতে থাকে মেয়েটির কৈশোর।


কৈশোরের চেয়ে বড় হয়ে উঠতে থাকে কৈশোরের স্বপ্ন।


স্বপ্নগুলো হিরের মতো, ঠিকরে বেরোতে থাকে আলো। সেই আলোয় ঝাপসা হয়ে যেতে থাকে


মার্বেল চোখের ছেলে, তার প্রতিরাতের নেশা, তার যাকে তাকে চুমু খাওয়া,


তার ভুলে যাওয়া, তার না আসা।


[তসলিমা নাসরিনের ব্লগ থেকে নেয়া]

0 comments:

Post a Comment

" কিছু স্বপ্ন আকাশের দূর নীলিমাক ছুয়ে যায়, কিছু স্বপ্ন অজানা দূরদিগন্তে হারায়, কিছু স্বপ্ন সাগরের উত্তাল ঢেউ-এ ভেসে যায়, আর কিছু স্বপ্ন বুকের ঘহিনে কেদে বেড়ায়, তবুও কি স্বপ্ন দেখা থেমে যায় ? " সবার স্বপ্নগুলো সত্যি হোক এই শুভো প্রার্থনা!

Follow me