মায়ের জন্য ভিন্নধর্মী উপহার

প্রয়োজনের সময় অনেক কিছু খুঁজে পাওয়া যায়না। খুঁজে না পাওয়ার এই থিওরী শুধুমাত্র জিনিষপত্র নয় আইডিয়ার ক্ষেত্রে ও প্রযোজ্য। সামনে আসছে মে মাসের দ্বিতীয় রবিবার (১২ই মে), আন্তর্জাতিক মা দিবস। অনেকেই হয়তো শেষ মুহূর্তে মায়ের জন্য উপহার কিনতে এসে এমন আইডিয়া সংকটে পড়ে যাবেন। শেষ মুহূর্তে এসে যারা এমন আইডিয়া সংকটে ভোগেন, এখান থেকে তারা কিছু সাহায্য নিতে পারেন।

চকোলেটঃ

চকোলেট প্রসঙ্গ আসলে অনেকেই হয়তো শারীরিক অবস্থা কিংবা বিধি নিষেধের দোহাই দেবেন। তবে উপহার হিসেবে চকোলেট পেলে খুশি হয়না, এমন লোক খুঁজে পাওয়া সত্যিই দুষ্কর। উপহার হিসেবে চকোলেট পেলে হয়তো আপনার মা অল্প একটু খেয়েই বাকীদের মাঝে বিলিয়ে দেবেন অথবা কিছুই খাবেননা, কিন্তু আপনার দেয়া এই এক টুকরো উপহারই কিন্তু তাঁকে অতীতের মিষ্টি কোন স্মৃতি ফিরিয়ে দিতে পারে!

স্পা, ম্যাসাজ কিংবা এরোমা থেরাপিঃ

এই আইডিয়াটি হয়তো কিছুটা দুঃসাহসী ধরনের হয়ে যাচ্ছে। তবে সাহস করে যদি ব্যাপারটি ঘটিয়ে ফেলতে পারেন, তবে কিন্তু মন্দ হবেনা। বয়স, শারীরিক অসুস্থতা কিংবা দীর্ঘদিনের অনিয়মের কারনে আমাদের দেশে মায়েরা শেষ বয়সে শরীর ম্যাজম্যাজ- ব্যথা কিংবা ত্বক অমসৃণ হয়ে যাবার মত কিছু কমন সমস্যায় ভোগেন। এক্ষেত্রে স্রেফ যদি দুই থেকে তিন ঘণ্টা সময় ব্যয়ে একটি স্পা কিংবা হ্যান্ড/ ফুট কেয়ারের এর জন্য মাকে রাজী করিয়ে ফেলতে পারেন, তবে কিন্তু পস্তাবেননা। স্পা শরীর ও মনের অবসাদ ও ক্লান্তি দূর করে সৌন্দর্য-সজীবতা ফিরিয়ে আনে, হ্যান্ড/ ফুট কেয়ারের মাধ্যমে আপনি অমসৃণ ত্বকের যত্ন নিতে পারেন। যেসব মায়েরা পর্দার ব্যাপারে সচেতন, তাদের জন্যও এমন অনেক পার্লার আছে যেখানে নারীদের পর্দার ব্যাপারটি নিশ্চিত করা হয়। স্পা কিংবা স্যালনের মত সেবা এখন খুব সুলভে পাওয়া যাচ্ছে। একটি ভালো মানের পার্লারে ৫০০ থেকে ২০০০ টাকা খরচে অনায়াসেই আপনি এমন সেবা পেতে পারেন।

সিনেপ্লেক্সঃ

শেষ কবে মা হলে গিয়ে সিনেমা দেখেছিলেন, সেটা হয়তো এখন আর মনেও করতে পারবেন না। সময় আর টিকেট এ দুটো ম্যানেজ করতে পারলে এই আইডিয়াটা ভেবে দেখতে পারেন। তবে হলে ঢোকার আগে নিশ্চিত হয়ে নিন ঠিক কোন সিনেমাটি আপনি দেখতে যাচ্ছেন... হলের ভেতর আপনি কিন্তু রিমোট কন্ট্রোলটি হাতে পাচ্ছেননা!

হাতির ঝিল কিংবা টিএসসিঃ

দিনকাল যা পড়েছে, কাউকে ঘর হতে বের হবার পরামর্শ দেবার আগে দুইবার চিন্তা করতে হয়। যদি পরিস্থিতি অনুকূলে থাকে, তবে বের হয়ে যান। কোন বদ্ধ, গতানুগতিক রেস্টুরেন্টে না গিয়ে বরং হাতির ঝিল কিংবা টিএসসির মত খোলামেলা জায়গা যেতে পারেন। নাটক করার অভ্যাস যদি থাকে, তবে অনেক দিন দেখা হয়না কিন্তু মায়ের খুব কাছের কাউকে সেখানে গোপনে আনিয়ে নিতে পারেন। অনেকদিন পর খুব আপন কারোর সাথে হঠাৎ রাস্তায় দেখা হয়ে যাবার মত আনন্দদায়ী ব্যাপার আর কিইবা হতে পারে!

বুঝে নিন মায়ের চাহিদাঃ

অনেক মা আছেন চাপা ধরনের। প্রয়োজনের কথা কখনো কাউকে খুলে বলতে চাননা। সেক্ষেত্রে খেয়াল করুন আপনার মায়ের কোন জিনিষটির বেশি প্রয়োজন। ধরুন আপনার মায়ের সদ্য ডায়বেটিস ধরা পড়েছে, খুব সকালে উঠে আজকাল হাঁটাহাঁটি করেন। সেক্ষেত্রে মা দিবসে তাঁকে উপহার দিতে পারেন এক জোড়া জুতো অর্থাৎ রানিং শু। এই জুতো হয়তো তাঁর খুব বেশি ব্যবহার করা হবেনা, তবে মায়ের প্রয়োজনগুলো আপনি খেয়াল করেছেন- এটা ভেবেই তাঁর প্রাণটা জুড়িয়ে যাবে।

ব্যস্ত শহরের নিষ্করুণ পথে ঘাটে আমরা দিনে রাতে হন্যে হয়ে ছুটে বেড়াচ্ছি। ছুটে বেড়াচ্ছি অর্থ, যশ, সম্পদের পেছনে। দিকভ্রান্তের মতো ছুটতে ছুটতে আমরা অনেক সময় ঘরে রেখে আসা আমাদের শ্রেষ্ঠ সম্পদটির কথাই ভুলে যাই। তফাৎ শুধু এটুকুই, এই সম্পদটি হাসিল করতে আমাদের কোন ত্যাগ স্বীকার করতে হয়নি। এ কারনেই হয়তো এ সম্পদটির কথা আমরা প্রায়শ ভুলে যাই।

এই মা দিবসে মায়ের প্রতি সন্মান এবং ভালোবাসা জানানোর সুযোগটুকু হাতছাড়া করবেননা। মা দিবসের আনন্দময় মুহূর্তগুলিতে হাসি ফুটে উঠুক এদেশের সকল ভাগ্যহীনা মায়ের মুখে।

0 comments:

Post a Comment

" কিছু স্বপ্ন আকাশের দূর নীলিমাক ছুয়ে যায়, কিছু স্বপ্ন অজানা দূরদিগন্তে হারায়, কিছু স্বপ্ন সাগরের উত্তাল ঢেউ-এ ভেসে যায়, আর কিছু স্বপ্ন বুকের ঘহিনে কেদে বেড়ায়, তবুও কি স্বপ্ন দেখা থেমে যায় ? " সবার স্বপ্নগুলো সত্যি হোক এই শুভো প্রার্থনা!

Follow me