হাসি ভালোবাসি


জীবনের সবচেয়ে বড় উপহার, প্রাণখোলা হাসি। মানসিক শক্তি জোগানোর পাশাপাশি হাসির শারীরিক উপকারিতা অপরিসীম। হাসির সময় হৃদস্পন্দন দ্রুত হয় এবং জোরে জোরে শ্বাস পড়ে। তাই হাসি শেষে শরীরকে বেশ হাল্কা মনে হয়। প্রতিদিন মন খুলে হাসলে শারীরিক ও মানসিক চাপ দূর হয়। এতে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে। এক গবেষণায় দেখা গেছে, ২০ থেকে ৩০ মিনিট হাসলে রক্তচাপ কমে আসে। এজন্য হৃদরোগ, স্ট্রোক, হার্ট অ্যাটাক এবং উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে হাসি পথ্যের মতো কাজ করে।


হাসি এক ধরনের ব্যায়ামও বটে, কেননা এটি পেশির সঞ্চালন বাড়িয়ে ক্যালোরি ক্ষয় করে। টানা ৮ সপ্তাহ হাসির থেরাপি নিলে শরীরের ব্যথা প্রায় ৫৫ শতাংশ পর্যন্ত কমানো সম্ভব। যা ব্যথার ওষুধের চাইতেও দ্রুত কাজ করে এবং পার্শ^প্রতিক্রিয়ারও ভয় নেই।


ডায়াবেটিস রোগীর রক্তে সুগার লেভেল কমাতে পাশাপাশি নিদ্রাহীনতার অব্যর্থ সমাধান হতে পারে হাসি। এটি চাপ কমিয়ে শরীরকে শিথিল রাখে, ফলে ঘুম গভীর হয় এবং দিনভর কাজের প্রতি তীক্ষè মনোযোগ থাকে, মেজাজও হয়ে ওঠে চনমনে। তাই শত ব্যস্ততা বা হতাশার ভিড়ে আপনার হাসি যেন ঢাকা না পড়ে। ডেইলি হেলথ পোস্টডটকম।

0 comments:

Post a Comment

" কিছু স্বপ্ন আকাশের দূর নীলিমাক ছুয়ে যায়, কিছু স্বপ্ন অজানা দূরদিগন্তে হারায়, কিছু স্বপ্ন সাগরের উত্তাল ঢেউ-এ ভেসে যায়, আর কিছু স্বপ্ন বুকের ঘহিনে কেদে বেড়ায়, তবুও কি স্বপ্ন দেখা থেমে যায় ? " সবার স্বপ্নগুলো সত্যি হোক এই শুভো প্রার্থনা!

Follow me