হাল ফ্যাশনে এখন নিয়ন রঙ!

সেই একই হালকা আর অনুজ্জ্বল রঙের পোশাক পরতে পরতে বিরক্ত হয়ে গিয়েছেন? তাহলে এখনই সময় রঙিন হওয়ার। মনের রঙ লাগিয়ে নিন আপনার পোশাকেও। রং বেরঙের পোশাক পরুন, রঙ-চঙে লিপস্টিক লাগিয়ে নিন অথবা সঙ্গে নিন একটি উজ্জ্বল রঙের ব্যাগ বা জুতো।

নিজেকে বেমানান দেখাবে কিনা ভাবছেন? চিন্তা নেই, কারণ এখন চলছে রঙিন এর ফ্যাশন। পোশাক থেকে শুরু করে আনুসাঙ্গিক সব কিছুতেই লেগেছে রঙের ছোয়া। আর সেই রং গুলোও হচ্ছে চড়া রঙ বা নিয়ন রং। খুবই দৃষ্টি কাড়া রঙ এগুলো, তাই এই রঙ গুলোর ব্যবহারে আপনাকে আকর্ষনীয় লাগবেই। আসুন জেনে নেয়া যায় কোন ক্ষেত্রে কিভাবে নিয়ন রঙ গুলো বেছে নেয়া যায়।

মেকআপ

মেকআপের ক্ষেত্রে নিয়ন রঙের ব্যবহার বেশ চোখে পড়ার মতই। ইদানিং অনেক মেয়েরাই নখে এবং ঠোঁটে নিয়ন রঙ গুলো ব্যবহার করছে। কেউ কেউ চুলটাকেই রাঙিয়ে নিচ্ছে নিয়ন রঙে। নেইল পলিশের ক্ষেত্রে লাল, হলুদ ও ইলেক্ট্রিক নীল চলছে বেশি। আর লিপস্টিকের বেলায় চলছে লাল, হট পিঙ্ক, কড়া ম্যাজেন্টা, কমলা, ফুচিশিয়া ইত্যাদি রঙ গুলো। যখন যেই পোশাকের সাথে যেটা মানায় সেটাই লাগিয়ে ফেলুন নির্ভয়ে। কারন এই রঙ গুলো সব ধরনের গায়ের রঙেই মানিয়ে যায়। তবে রাতের অনুষ্ঠানে যেতে লাল কিংবা ম্যাজেন্টাকেই প্রাধান্য দিতে পারেন।

পোশাক

নিজেকে রঙিন করতে চাইলে পড়ে নিন নিয়ন রঙের পোশাক-আশাক। চোখ ধাঁধানো সবুজ, টিয়া, ইলেক্ট্রিক নীল, ফিরোজা, গোলাপি, কমলা, হলুদের কিংবা কড়া লাল রঙ গুলো বেছে নিতে পারেন পোশাকের ক্ষেত্রে। গায়ের রঙ একটু শ্যামলা হলে হলুদ ও টিয়া এড়িয়ে অন্যান্য নিয়ন রঙ গুলো বেছে নিন। আর গায়ের রঙ উজ্জ্বল হলে সব গুলো রঙই পরতে পারেন। আর যদি পোশাকে খুব উজ্জ্বল রঙ পরতে ইচ্ছে না করা তাহলে প্যাস্টের রঙ গুলো পোষাকের ক্ষেত্রে বেছে নিন। সঙ্গে গলায় ঝুলিয়ে নিন একটি নিয়ন স্কার্ফ অথবা ওড়না। যে কোনো সাধারণ টপস বা ফতুয়া কেও অসাধারণ করে তুলতে পারবেন একটি নিয়ন রঙের প্যান্ট পরে। মার্কেটে গেলেই পেয়ে যাবেন বিভিন্ন রঙের এই প্যান্ট গুলো। দাম ৩০০ থেকে ১০০০ টাকা। আর সাথে রঙিন স্কার্ফ গুলো পাবেন ২৫০ থেকে ৫০০টাকার মধ্যে। 

পুরুষরাও নিয়ন রঙ ব্যবহারে পিছিয়ে নেই। পুরুষেরও নিয়ন রঙের প্যান্টে মার্কেট সয়লাব হয়ে গিয়েছে। আর সেই সঙ্গে পাওয়া যাচ্ছে নিয়ন টি শার্ট, শার্ট ও অন্যান্য আনুসঙ্গিক জিনিসপাতি। পুরুষের নিয়ন প্যান্টের দাম পড়বে ৪০০ থেকে ১৫০০ এর মধ্যে। আর নিয়ন টি শার্টের দাম ১৫০ থেকে ১২০০ টাকার ভেতরেই।

আনুসাঙ্গিক

ইদানিং পোশাক আর মেকআপে তো বটেই, হাতের ব্যাগ, ঘড়ি, গলার মালা, কানের রিং, আঙটি সব কিছুতেই চলচে নিয়ন রঙের ব্যবহার। পায়ের জুতাটাও অনেকেই পরছেন উজ্জ্বল রঙের। এছাড়াও হাতে রঙ বেরঙের নিয়ন ব্রেসলেটও পরতে দেখা যাচ্ছে তরুন প্রজন্মকে। নারী পুরুষ সবাই পরছেন এই চড়া রঙের ব্রেসলেট গুলো। 

পুরুষের জুতাতেও লেগেছে রঙের বাহার। লাল, হলুদ, সবুজ, নীল সব রঙের জুতাই পরছেন পুরুষরা। উজ্জ্বল রঙের বেল্টও পরছেন অনেকেই। সঙ্গে হাতে পড়ে নিচ্ছেন একটি উজ্জ্বল নিয়ন রঙের ঘড়ি।
সবাই তো নিজেকে রাঙ্গিয়ে নিচ্ছে ফ্যাশনের সাথে তাল মিলিয়ে। তাহলে আপনি পিছিয়ে থাকবেন কেনো? আপনিও নিজেকে রঙিন করে তুলুন নিয়ন রঙগুলো ব্যবহার করে।

0 comments:

Post a Comment

" কিছু স্বপ্ন আকাশের দূর নীলিমাক ছুয়ে যায়, কিছু স্বপ্ন অজানা দূরদিগন্তে হারায়, কিছু স্বপ্ন সাগরের উত্তাল ঢেউ-এ ভেসে যায়, আর কিছু স্বপ্ন বুকের ঘহিনে কেদে বেড়ায়, তবুও কি স্বপ্ন দেখা থেমে যায় ? " সবার স্বপ্নগুলো সত্যি হোক এই শুভো প্রার্থনা!

Follow me