সামলে উঠতে হবে যখন প্রিয়জনের মৃত্যুশোক..


প্রতিদিন সকালে বিকালে যে মানুষটির সাথে কথা হতো, একদিনও যাকে ছাড়া চলতো না হঠাৎ করে সে নেই! তার মৃত্যুতে অদ্ভুত এক শূন্যতা সৃষ্টি হয়েছে যার ধাক্কা কিভাবে সামলে উঠবেন ভেবে পাচ্ছেন না। বিষণ্ণতায় আর শূন্যতায় হাহাকার করে কাটছে জীবন।

জন্ম এবং মৃত্যু একটি স্বাভাবিক প্রক্রিয়া। তবুও আকষ্মিক এভাবে প্রিয় কোনো মানুষের চলে যাওয়াটাকে কেউই মেনে নিতে পারেনা। যার ফলাফল হলো বিষণ্ণতা, শারীরিক ও মানসিক দূর্বলতা, কাজের ও পড়াশোনার ক্ষতি এমনকি আত্মহত্যার মতো বড় বড় সমস্যা। এমন পরিস্থিতিতে নিজেকে সামলে রাখা খুবই কষ্ট। তবুও জীবনের প্রয়োজনে সবাইকেই এমন পরিস্থিতি থেকে নিজেকে সামলে নিয়ে সামনে এগিয়ে যেতে হয়। আসুন জেনে নেয়া যাক প্রিয় কোনো মানুষের আকষ্মিক মৃত্যুতে কিভাবে নিজেকে সামলে নেয়ার চেষ্টা করতে হবে।

মন খুলে কাঁদুন

প্রিয়জনের মৃত্যুতে কান্না আসবে এটাই স্বাভাবিক। কান্না চেপে রাখার চেষ্টা করবেন না। মন খারাপ হলে কাঁদুন। মন খুলে কাঁদলে হালকা লাগবে অনেকটাই। মনের মধ্যে কষ্ট চেপে রাখলে বরং বেশি ক্ষতি। তাই মনের কষ্ট কেঁদে বের করে দিন। খুব বেশি কষ্ট হলে রুমের দরজা লাগিয়ে চিৎকার করে কাঁদুন। দেখবেন আপনার মনটা কিছুটা হলেও হালকা লাগছে।

সহযোগীতা নিন

আপনার কাছের কারো মৃত্যু হলে প্রচুর মানসিক সহযোগীতা দরকার। এসময়ে আশেপাশে বন্ধু বান্ধব ও পরিবার পরিজনের সান্তনা ও সহযোগীতা প্রয়োজন। সারাক্ষন কাছের মানুষদের সাথে থাকার চেষ্টা করুন। আপনার কোনো সাহায্য লাগলে তাদেরকে খুলে বলুন। কারণ আপনার দূর্বল মানসিক অবস্থা নিয়ে আপনি খুব বেশি দায়িত্ব নিতে পারবেন না। তাই আপনার বন্ধু ও আত্মীয়দের সাহায্য নিয়ে মানসিক ভাবে কিছুটা শক্ত হওয়ার চেষ্টা করুন।

মানসিক অস্থিরতা কাটান

প্রিয়জনের মৃত্যুর পর সবারই কিছু মানসিক সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। অল্পতেই রাগ, ক্ষোভ, বিষণ্ণতা, স্রষ্টার প্রতি অবিশ্বাস, আত্মহত্যা ও মেনে নিতে না পারার মত সমস্যা গুলো এসময়ে প্রকট রূপ ধারণ করে। তাই এই কঠিন সময়টা একটু ধৈর্য ধরে পার করুন। নিজেকে বুঝান যে আপনি যা করছেন ঠিক করছেন কিনা। বিশেষ করে আত্মহত্যার মত ভুল সিদ্ধান্তে যাওয়ার কথা ভুলেও চিন্তা করবেন না। কারণ প্রিয় কারো মৃত্যুতে আপনি খুব বেশি ভেঙ্গে পরলে আপনার পরিবার কিভাবে সান্তনা পাবে একবার ভেবে দেখুন। তাই এই মানসিক চাপের সময়টা একটু সাবধানে ধৈর্য্য ধরে কাটিয়ে দিন। কিছুদিন পার হয়ে গেলেই দেখবেন আপনি মানসিক চাপ কাটিয়ে উঠেছেন অনেকটাই।

সামনে এগিয়ে যান

জীবনে ঝড় ঝাপটা আসবেই। কিন্তু তাই বলে কি থেমে থাকা যাবে? দুঃখ ভুলে সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করুন। নতুন করে কাজ কর্ম শুরু করে দিন। পড়াশোনায় মন দেয়ার চেষ্টা করুন। প্রথমে সমস্যা হলেও পড়ে সফল হবেন। হারিয়ে যাওয়া প্রিয় মানুষটির সঙ্গ ছাড়াই সামনে এগিয়ে নিন নিজেকে। মনে করে নিন এটাই জীবনের কঠিন বাস্তবতা।

0 comments:

Post a Comment

" কিছু স্বপ্ন আকাশের দূর নীলিমাক ছুয়ে যায়, কিছু স্বপ্ন অজানা দূরদিগন্তে হারায়, কিছু স্বপ্ন সাগরের উত্তাল ঢেউ-এ ভেসে যায়, আর কিছু স্বপ্ন বুকের ঘহিনে কেদে বেড়ায়, তবুও কি স্বপ্ন দেখা থেমে যায় ? " সবার স্বপ্নগুলো সত্যি হোক এই শুভো প্রার্থনা!

Follow me