যোনির মেকওভারেও…


ঢাকা : যোনির মেকওভারেও এবার মুম্বইতে শু্রু হল বোটক্স ট্রিটমেন্টবয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে মুখ এবং শরীরের বিভিন্ন অংশের চামরা কুঁচকে যাওয়া খুব স্বাভাবিক। কিন্তু বটুলিনাম টক্সিন (বোটক্স)-এর সাহায্যে কোঁচকানো চামড়া টানটান করে শরীরে যৌবনের রেশ জিইয়ে রাখা নতুন কিছু না। তবে শুধু মুখ, হাত, পা নয় এবার শরীরের গোপনাঙ্গেও মেকওভারের ঢেউ আনল বোটক্স। বোটক্সের ছোয়াঁয় কসমেটিক শল্য চিকিৎসকরা নতুন যৌবন নিয়ে আসছেন যোনিতেও। সুখের কথা এর জন্য ছুটতে হবে না কোনও ভিনদেশে। খোদ মুম্বইতেই এখন জোরকদমে চলছে যোনির বোটক্স ট্রিটমেন্ট।

মুম্বইয়ের গাইনোপ্লাস্টি শল্যচিকিৎসক সেজাল দেশাই জানিয়েছেন যোনির কুঁচকানো চামড়া আবার সোজা করতে বোটক্সের সঙ্গে ব্যবহার করা হয় ডার্মাল ফিলারও। বয়স বাড়ার সঙ্গেই যোনির চামড়া এক পাশে ঝুলে পড়ে, বা কুঁচকে যায়। বোটক্সের মাধ্যমে উভয় সমস্যারই সমাধান সম্ভব।

তবে কসমেটিক কারণ ছাড়াও অনান্য কিছু ক্ষেত্রেও বোটক্স ব্যবহৃত। বোটক্সের সাহায্যে জি স্পট বৃদ্ধি করে সঙ্গম সুখকে বাড়িয়ে তোলা যায়। যন্ত্রণাদায়ক সঙ্গম নিরাময়ে, মূত্র ত্যাগের সময় যন্ত্রণা অবসানে, ভ্যাজিনিসমাস অবস্থা কাটিয়ে তুলতেও বোটক্স ব্যবহার করা হয়।

সাধারণত ১৮ থেকে ৩৫ বছরের মহিলারা জি স্পট বাড়াতে, যন্ত্রণা দায়ক সঙ্গম উপসমে, ভ্যাজিনিসম কাটিয়ে তুলতে বোটক্সের সাহায্য নেন। অন্যদিকে ৩০ থেকে ৬৫ বছরের মহিলারা যোনির চামড়া টানটান করতে বোটক্স ব্যবহার করেন। ত্রিশোর্দ্ধ কর্মজীবী মহিলাদের মধ্যেই বোটক্স ব্যবহারের প্রবণতা বেশি।

জি স্পটের বৃদ্ধি, যোনির চামড়া টানটান করতে কয়েক ঘণ্টা লাগে মাত্র। দুপুরে হাসপাতালে ভর্তি হলে বিকেলেই ছাড়া পাওয়া যায়। অন্যদিকে ভ্যাজিনিসমাস সারিয়ে তুলতে, যন্ত্রণা দায়ক সঙ্গম থেকে মুক্তি পেতে, মূত্র ত্যাগের সমস্যা নিরাময়ে বোটক্স ব্যবহৃত হলে একদিন হাসপাতালে কাটাতে হয়। বোটক্স কতবার এবং কী পরিমাণে ব্যবহার করা হচ্ছে তার উপর ভিত্তি করে এর প্রভাব তিন মাস থেকে দু`বছর পর্যন্ত স্থায়ী হয়। বোটক্স ইঞ্জেকশন নেওয়ার তিন থেকে ১৪ দিনের মধ্যে ফলাফল লক্ষ্য করা যায়।

যিনি বোটক্স ব্যবহার করতে চান তাঁর চাহিদা উপর নির্ভর করে যোনিতে বোটক্স ব্যবহারের খরচ পড়ে ৩০,০০০ থেকে ৫০,০০০টাকা।

তবে যোনির কুঁচকানো চামড়া টানটান করতে অত্যাধিক বোটক্সের ব্যবহার ক্ষতিকর বলে জানিয়েছেন ডাক্তাররা।

0 comments:

Post a Comment

" কিছু স্বপ্ন আকাশের দূর নীলিমাক ছুয়ে যায়, কিছু স্বপ্ন অজানা দূরদিগন্তে হারায়, কিছু স্বপ্ন সাগরের উত্তাল ঢেউ-এ ভেসে যায়, আর কিছু স্বপ্ন বুকের ঘহিনে কেদে বেড়ায়, তবুও কি স্বপ্ন দেখা থেমে যায় ? " সবার স্বপ্নগুলো সত্যি হোক এই শুভো প্রার্থনা!

Follow me