বয়স নিয়ে ভাবনা? আর না আর না


”বয়ষ্ক মানুষেরাই জগতের বেশিরভাগ সুখি মানুষ। তাই বয়স বাড়ার সাথে সাথে মৃত্যু ঘনিয়ে আসছে ভেবে মন খারাপ করার কোনোই অর্থ হয় না”খুব সম্প্রতি ১৮ থেকে ৮৫ বছর বয়ষ্ক প্রায় তিন লাখ চল্লিশ (৩৪০,০০০) হাজার জনের উপরে জরিপ করে বের হয়েছে এই চমকপ্রদ তথ্যটি।

জরিপে জানা গেছে, ১৮ বছরের পর থেকে ৫০ বছর পর্যন্ত মানুষের মধ্যে একটা অসুখি ভাব কাজ করে। ফলে এই বয়সিদের বেশিরভাগই নিজেকে অসুখি মনে করে। আবার বয়স ৫০ পেরোনোর পর থেকে ৮৫ বছর পর্যন্ত তারা নিজেদেরকে সুখি মনে করতে শুরু করে ।
অর্থাৎ, যুবক বয়সের চেয়ে বৃদ্ধ অবস্থাতেই মানুষ বেশি সুখে আছে বলে ধারনা করে ।
কিন্তু এই রকম ধারনা কেন করছে তারা সেই বিষয়ে নির্দিষ্ট করে কিছু জানা যায় নি।

জরিপে অংশ নেওয়া ৮৫ বছর বয়ষ্ক একজন বলেন, ১৮বছর বয়সে আমি যে খুশি এবং উদ্দিপনা অনুভব করতাম তার চেয়ে ঢের বেশি আনন্দ আর উদ্দিপনা অনুভব করি এই বয়সে।।

এই জরিপের স্বার্বিক তত্ত্বাবধায়ক নিউ ইয়্যর্ক স্টেট ইউনিভার্সিটির মনোবিজ্ঞানের অধ্যাপক ডঃ আর্থার এ স্টোন এই সুখি ভাবার সম্ভ্যাব্য কারন হিসেবে বলেন,” এটি হতে পারে মানুষের পরিবেশগত পরিবর্তন মানসিক পরিবর্তন এবং পৃথিবীকে দেখার দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তনের জন্য, আবার হতে পারে শারিরীক, বুদ্ধিমত্তার পরিবর্তনও মানুষকে এরকম ভাবতে সাহায্য করছে। তবে এই সকলই সম্ভাবনার কথা । তবে এটা সত্য যে ১৮ বছর বয়সের পর থেকে ধীরে ধীরে ৫০ বছর বয়স পর্যন্ত নিজেকে অসুখি মনে করতে থাকে অন্যদিকে ৫০ থেকে ৮৫ বছরের মধ্যে তদের স্ফুর্তি এবং হাসিখুশি ভাবটা আবার ফিরে আসে ”

0 comments:

Post a Comment

" কিছু স্বপ্ন আকাশের দূর নীলিমাক ছুয়ে যায়, কিছু স্বপ্ন অজানা দূরদিগন্তে হারায়, কিছু স্বপ্ন সাগরের উত্তাল ঢেউ-এ ভেসে যায়, আর কিছু স্বপ্ন বুকের ঘহিনে কেদে বেড়ায়, তবুও কি স্বপ্ন দেখা থেমে যায় ? " সবার স্বপ্নগুলো সত্যি হোক এই শুভো প্রার্থনা!

Follow me